বিস্তারিত
  • ‘ওয়ান পাউন্ড’ জেনারেল হসপিটাল” প্রতিষ্ঠায় নর্থ ওয়েষ্ট অব ইংল্যান্ডে সভা


    বিশ্বনাথ বিডি ২৪ || ০৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ণ || প্রবাস, বিশ্বনাথ


    বিশ্বনাথ বিডি ২৪:-  ব্রিটিশ চ্যারিটি রেজিষ্টার ‘ওয়ান পাউন্ড’ হসপিটালের উদ্যোগে সিলেটের গরীব ও অসহায় রোগীদের চিকিৎসা সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে বিশ্বনাথে ‘ওয়ান পাউন্ড’ জেনারেল হসপিটাল” প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে এক সাধারণ সভা নর্থ ওয়েষ্ট অব ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওল্ডহামের ওয়েষ্টউড ইষ্ট রেস্টুরেন্টে গত ৩ নভেম্বর দুপুরে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ওল্ডহাম সেন্ট্রাল মসজিদের মোতাওয়াল্লী হাজি মুক্তার আলীর সভাপতিত্বে এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ওল্ডহামের কোঅর্ডিনেটর জামাল উদ্দিনের পরিচালনায় এ সভা অনুষ্টিত হয়। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন শাহ ফিরোজ আলী।
    সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের প্রধান উপদেষ্টা রামসুন্দর হাই স্কুলের সাবেক সিনিওর শিক্ষক আবুল হাশেম বিএসসি। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন ওল্ডহাম কাউন্সিলের ডেপুটি লিডার কাউন্সিলর আব্দুল জব্বার এমবিই, কাউন্সিলর আব্দুল মালিক,বিশ্বনাথ দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমির আলী।

    সভায় বক্তারা বলেন,সিলেটের গরীব রোগীদের চিকিৎসা সহায়তায় সকলের সাহায্য ও সহযোগীতা নিয়ে বিশ্বনাথে ‘ওয়ান পাউন্ড জেনারেল হসপিটাল” নামে হসপিটালটি প্রতিষ্ঠা করতে একদল উদ্যমী মানুষ দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।মার্চ ২০১৭ থেকে বিশ্বনাথে ফ্রি ফ্রাইডে ক্লিনিকের মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা শুরু করলেও এ সেবাকে সপ্তাহের প্রতিদিন এবং দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা বাস্তবায়নে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় সমাজের বিত্তশালিদের এগিয়ে আসার জন্য সংস্হার চেয়ার পার্সন এলার্জি বিশেষজ্ঞ ডা. শানুর আলী মামুন ও সেক্রেটারি জেনারেল ও কাউন্সিলর মো. আয়াস মিয়া উপস্হিত সকলকে আবেদন করেন। তাঁরা পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে সংস্হার আদর্শ উদ্দেশ্য অতীত, বর্তমান অবস্হা ও ভবিষ্যত পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। তাঁরা বলেন,এই প্রস্তাবিত হাসপাতাল পুরো বিশ্বনাথবাসীর স্বপ্ন এবং এ স্বপ্ন পুরনের প্রথম ধাপ বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নে অত্যন্ত সুন্দর লোকশনে প্রায় পাঁচ বিঘা জমি নিয়ে প্রতিষ্টিত হবে হসপিটাল। যা বিশ্বনাথের আশেপাশের উপজেলার রোগীদের জন্যও এক সুবিধাজনক স্হান। দুজন ভুমিদাতা প্রায় সত্তর শতক জাগা দান করেছেন এবং বাকী ভুমি ক্রয় ও উন্নয়নের জন্য আনুমানিক একশত হাজার পাউন্ডের প্রয়োজন। ভুমি ক্রয়ে ও ভবনের প্রাথমিক কাজ শুরু করার জন্য জ্বরুরী ভিত্তিতে পাঁচশত হাজার পাউন্ডের প্রয়োজন।যা হাসপাতালের দ্বিতীয় ধাপের কার্যক্রম শুরু করতে সহায়তা করবে। রোগীদের বহি:বিভাগের (outdoor services) চিকিৎসা ব্যবস্হা প্রদান শুরু করা যেতে পারে।

    প্রধান অথিতির বক্তব্যে জনাব আবুল হাশেম বিএসসি বলেন, বিশ্বনাথে প্রবাসীদের উদ্যোগে স্কুল,কলেজ,মসজিদ-মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হলেও বেসরকারী উদ্যোগে গরীব রোগীদের সাহায্যার্থে একটা পুর্নাঙ্গ হাসপাতাল নাই, যা অতীব জ্বরুরী। আমি বিশেষ করে আমার ছাত্রছাত্রীসহ বিশ্বনাথের বিত্তশালীদের কাছে এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে জ্বরুরী ভিত্তিতে এগিয়ে আসার আবেদন জানাচ্ছি এবং এই প্রতিষ্টানের পুরো বাস্তবায়নে সিলেটসহ পুরো বাংলাদেশের হৃদয়বান মানুষের সাহায্য ও সহযোগিতা কামনা করছি।

    বিশেষ অতিথি কাউন্সিলর আব্দুল জব্বার বলেন, চিকিৎসা মানুষের এক মৌলিক চাওয়া। আর বিশ্বনাথে গরীবদের সাহায্যার্থে বেসরকারী উদ্যোগে একটা হাসপাতাল যা ৫০ বছর আগেই হওয়া উচিত ছিলো! দেরিতে হলেও এ রকম একটা উদ্যোগ আমাদের কাছে এসেছে। আমাদের সকলকেই দলমত নির্বিশেষে এর বাস্তবায়নে এগিয়ে আসা খুবই দরকার।
    তাছাড়া মাত্র এক পাউন্ড মাসিক ডাইরেক্ট ডেবিট করে যে কেউ এই হসপিটালে শরীক হতে পারেন। ইচ্ছা করলে সকলের পক্ষেই তা সম্ভব। ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের কনসেপ্ট একটি চমৎকার আইডিয়া এবং আমি এর বাস্তবায়নে সর্বাত্নক সহযোগিতা করব।এ সময় তিনি হসপিটালের ফাউন্ডার মেম্বার হওয়ার ও প্রতিশ্রুতি দেন।

    বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কাউন্সিলর আব্দুল মালিকও একজন ফাউন্ডার মেম্বার ও সর্বাত্নক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি করেন। চেয়ারমযান আমির আলী বলেন,আমি ইংল্যান্ড ভ্রমনে এসে এই মহত কাজে শরীক হতে পারায় নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমার পুর্ন সমর্থন এবং দেশে গিয়েও এর বাস্তবায়নে সাহায্য করতে সব সময় আমাকে আপনাদের সাথে পাবেন।

    হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় উপস্হিত সকলেই সমর্থন ও সাহায্যের আশ্বাস দেন। জনাব আলী আশরাফ দশ হাজার পাউন্ড দান করে একজন গর্বিত পেট্রন হওয়ার ঘোষনা প্রদান করেন। এছাড়াও আরো ত্রিশজন দানশীল, এক হাজার পাউন্ড দান করে ফাউন্ডার মেম্বার হওয়ার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।যারা এক হাজার পাউন্ড বা সমপরিমান অর্থ হাসপাতাল তৈরিতে প্রদান করবেন,তারা হবেন ফাউন্ডার মেম্বার এবং তাদের নাম ‘ওয়াল অব ওনারে’ লেখা থাকবে। দশ হাজার পাউন্ড করে প্রদান করে একজন পেট্রন যার ছবিসহ নাম লেখা থাকবে। আপনি উইল করে বা বড় অংকের দান করেও এ হাসপাতালের প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করতে পারেন।

    এ সময় নর্থ ওয়েষ্ট ইংল্যান্ডের ছয়জন ফাউন্ডার মেম্বার যথাক্রমে লয়ার আনসার হাবীব, মো. আশরাফ হোসেন, মোহাম্মদ আলী ছালিক, মো. বশীর আহমদ, শাহ মস্তাব আলী ও মো. আরমান আলীর হাতে উপস্তিত অতিথিদের নিয়ে ফাউন্ডার মেম্বারশীপ সার্টিফিকেট তুলেদেন ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের ডাইরেক্টর অব মিডিয়া, কবি ও গীতিকার কউন্সিল শাহ সোহেল আমিন।

    অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,সংস্হার ডাইরেক্টর অব মার্কেটিং ইমেগ্রেশন লয়ার আনসার হাবিব, ডাইরেক্টর অব ফান্ড রাইজিং লন্ডনের শেডওয়েল মসজিদের ইমাম মৌলানা সিরাজুল ইসলাম সা’দ, ভুমি দাতা আশরাফ হোসাইন, ভুমি মালিক মোহাম্মদ আলী সালিক, প্রস্তাবিত পেট্রন আলী আশরাফ,বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা আলহাজ্ব সুনু মিয়া, মীর্জা আসকির বেগ, দানবীর সইল মিয়া, আব্দুল মান্নান মনাফ, সৈয়দ সাদিক আহমদ, জয়নাল আবেদিন, বসির আহমদ, শাহ মস্তাব আলী, হাজি তৈয়ব আলী, শাহ হুশিয়ার উল্লাহ, শাহ তাজুল ইসলাম শেখ আব্দুল হাই, নাসির উদ্দিন, নফর আলী, আব্দুস সাত্তার, আলহাজ্ব শাব্বীর আহমদ, নুর মিয়া, আজিজুর রহমান, শহীদ আলী, হাজি মনফর আলী, কবির উদ্দিন, নজরুল আলী, আকবর আলী, রফিকুল ইসলাম, ফকরুল ইসলাম, মশাহিদ আলম, হারুনুর রশীদ, নওয়াব আলী, আব্দুল খালিক, আবুল হোসেন, শাব্বীর আহমদ, নজির মিয়া, মোং আলতাব, আজমত আলী,কামরুল ইসলাম,শাহাদাত পারভেজ,এম এ উদ্দিন,আর উল্লাহ,শহীদ আলী,বাবুল উল্লাহ,শফিক আলী, আংগুর মিয়া প্রমুখ।



সর্বশেষ খবর


নিউজ খুঁজুন
আর্কাইভ
ফেইসবুক পেইজ